২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ বুধবার || ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম:
বন্ধ হচ্ছে করোনা লাইভ বুলেটিন, তথ্য মিলবে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ১২ দিনেও সন্ধান মেলেনি স্বর্ণ ব্যবসায়ীর টাঙ্গাইল এর বিশেষ অভিযানে ০৬ (ছয়) বোতল বিদেশী মদ উদ্ধারসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভেঙে পড়লো টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার কাশিল ইউনিয়নের দাপনাজোর ব্রিজ টাঙ্গাইলে ডাক্তার পরিচয়ে রোগী দেখেন ক্লিনিক মালিক ধরা পড়লো বহুল আলোচিত মধুপুরের চার হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী সাগর আজ দেশের ৯ অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হতে পারে বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁজ ম্যানসিটিকে হারিয়ে ফাইনালে আর্সেনাল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে টাঙ্গাইল শহর রক্ষা বাঁধ পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ এসপির বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলে চিকিৎসক-শিক্ষার্থীসহ আরও ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত একই পরিবারের ৪ জনকে গলাকেটে হত্যা, আটক ৩ ব্রিজ ভেঙে সিমেন্টবোঝাই ট্রাক বিলে, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন লাল বাদশার দাম ৮ লাখ টাকা করোনায় আক্রান্ত এমপি জোয়াহের ঘরকে ঠান্ডা রাখার কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি বিনামূল্যে ফেসবুক ব্যবহারের প্যাকেজে বিটিআরসির নিষেধাজ্ঞা টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বৃক্ষের চারা রোপণ কর্মসূচি কার্যক্রমের উদ্বোধন গলার কাঁটা ৩শ ফুট মির্জাপুরের বংশাই রোড
 

জামালপুর থেকে ‘করোনা’ নিয়ে টাঙ্গাইল গেলেন ফার্মাসিস্ট

টাঙ্গাইলে আরেকজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তি ফার্মাসিস্ট। করোনায় আক্রান্ত হয়ে জামালপুর থেকে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার নিজ বাড়িতে যান তিনি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত টাঙ্গাইলে মোট দুজন করোনায় আক্রান্ত হলেন।

নতুন করে এক ফার্মাসিস্ট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) দুপুরে নিশ্চিত করেছেন গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিকাশ বিশ্বাস।

এর আগে বুধবার (০৮ এপ্রিল) মির্জাপুর উপজেলার ভাওড়া গ্রামের এক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছিলেন টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. মো. ওয়াহিদুজ্জামান। মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে তাকে ঢাকায় কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নতুন করে আক্রান্ত ব্যক্তি জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট। তাকে জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, করোনায় অসুস্থ হয়ে জামালপুর থেকে টাঙ্গাইলে নিজ বাড়িতে আসেন ওই ফার্মাসিস্ট। তিনি স্থানীয় এক স্কুলশিক্ষকের ছেলে। গ্রামে এসে বিভিন্ন জায়গায় ঘোরাঘুরি ও মসজিদে নামাজ আদায় করেছেন তিনি। এজন্য তার বাড়ি ও গ্রাম লকডাউন করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

মন্তব্য করুন: